চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রথম মুক্তিযুদ্ধভিত্তিক ভাস্কর্য ‘চেতনা ৭১’

Posted by ????? ??? ??????
Feb. 19, 2019, 4:44 p.m.

যুদ্ধ শেষে দুই হাতে অস্ত্র উঁচিয়ে জয়োল্লাস করছেন এক নারী ও পুরুষ মুক্তিযোদ্ধা। একদিকে স্বাধীন দেশ, অন্যদিকে যুদ্ধ পরবর্তী মুক্তিযোদ্ধাদের স্বাধীনতার বহিঃপ্রকাশ। এর ঠিক নিচেই ১৮টি মানব অবয়ব। যারা সবাই যুদ্ধ পরবর্তী বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী। এতে বাদ যায় না উপজাতি নারী শিক্ষার্থীও। তাদের অবয়বে ফুটিয়ে তোলা হয়েছে নানা প্রতিবাদী ও সংগ্রামী অঙ্গ-ভঙ্গি। যার মাধ্যমে বর্তমান প্রজম্মের মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে লালন করার একটি চিত্র প্রতিফলিত হয়েছে। এই মূল ভাবনার ওপর ভিত্তি করেই চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে (চবি) নির্মিত হচ্ছে ভাস্কর্য ‘চেতনা ৭১’। প্রতিষ্ঠার অর্ধ শতাব্দী পর চবিতে এটিই প্রথম ভাস্কর্য। স্বাধীনতার মাস মার্চেই ভাস্কর্যটি উদ্বোধন করার কথা রয়েছে। নগরীর বাদশা মিয়া রোডস্থ চারুকলা ইনস্টিটিউটে ভাস্কর্য বিভাগের ছাদে শামিয়ানা টাঙিয়ে চলছে এ ভাস্কর্য নির্মাণের কাজ। ৯ মাস আগে এ কর্মযজ্ঞ শুরু হয়। চবির চারুকলার ভাস্কর্য বিভাগের ৪১তম ব্যাচের সাবেক শিক্ষার্থী ভাস্কর সৈয়দ মো. সোহরাব জাহান এ ভাস্কর্যটির মূল কারিগর। তার সহযোগী হিসেবে রয়েছেন একই বিভাগের শিক্ষার্থী মুজাহিদুর রহমান মুসা ও জয়াশীষ আচার্য। মূল বেদীসহ নির্মিতব্য ভাস্কর্যটির উচ্চতা হবে ১৮ ফুট আর প্রস্থে ২২ ফুট। এর মধ্যে উপরের স্তরে দুই মুক্তিযোদ্ধার উচ্চতা হবে ১১ ফুট এবং নিচের স্তরে প্রতিটি মানব অবয়ব উচ্চতা ৫ ফুট। বিশ্ববিদ্যালয়ের মূল কেন্দ্রস্থল শহীদ মিনার ও বুদ্ধিজীবী চত্বরের সামনে সড়কে মধ্যবর্তী জায়গায় স্থাপন করা হবে এ ভাস্কর্য। যা নির্মাণে ১৫ লক্ষ টাকা খরচ করা হচ্ছে বলে জানিয়েছন ভাস্কর্য নির্মাণের সমন্বয়ক প্রক্টর আলী আজগর চৌধুরী। এর মধ্যে বিশ্ববিদ্যালয় তহবিল হতে ৫ লাখ টাকা ও ব্যক্তি অনুদানে ১০ লাখ টাকা সংগ্রহ করা হচ্ছে। ছবি ও তথ্যসূত্র: জাগো নিউজ