নজরুল ইসলাম (মুক্তিযোদ্ধা)

Posted by AL Amin Khan
Feb. 19, 2019, 4:44 p.m.
১৯৭১ সালের ২৫ সেপ্টেম্বর চুয়াডাঙ্গা জেলার আলমডাঙ্গা উপজেলার অন্তর্গত কয়রাডাঙ্গায় নজরুল ইসলামসহ একদল মুক্তিযোদ্ধা সেপ্টেম্বর মাসের মাঝামাঝি ভারত থেকে আলমডাঙ্গায় এসেছিলেন গেরিলা অপারেশনে। তাঁরা বেশ কয়েকটি গেরিলা অপারেশন করেন। সেদিন নজরুল ইসলাম এসেছিলেন নিজ গ্রামে। কিন্তু তাঁর আসার খবর পাকিস্তান সেনাবাহিনীর স্থানীয় দোসররা জেনে যায়। তারা গোপনে দ্রুত খবর পৌঁছে দেয় সেখানে টহলে থাকা পাকিস্তানি সেনাদের। খবর পেয়ে পাকিস্তানি সেনাদের টহল দল সহযোগী রাজাকারদের সঙ্গে নিয়ে কয়রাডাঙ্গায় চলে আসে। নজরুল ইসলাম খবর পেয়ে প্রথমে পালানোর চেষ্টা করেন। পাকিস্তানি সেনা ও রাজাকাররা গোটা এলাকা ঘেরাও করে এগিয়ে আসছিলো। তখন তিনি লড়াই করার সিদ্ধান্ত নেন কিন্তু তাতেও তিনি ব্যর্থ হন। তাঁর কাছে ছিল হালকা অস্ত্র। সেই অস্ত্র দিয়ে কয়েকটি গুলি করামাত্র পাকিস্তানি সেনারা ঝাঁকে ঝাঁকে গুলি শুরু করে। তিনি আহত হয়ে মাটিতে পড়ে যান। এরপর পাকিস্তানি সেনারা তাঁকে আটক করে। পাকিস্তানি সেনারা নজরুল ইসলামের ওপর অকথ্য নির্যাতন চালায়। জানার চেষ্টা করে তাঁর সহযোদ্ধাদের নাম ও অবস্থান। শত নির্যাতনেও তা তিনি প্রকাশ করেননি। পরে পাকিস্তানি সেনারা গুলি করে হত্যা তাঁকে করে।