বিয়ানীবাজারের সওজ ডাকবাংলো

Posted by ????? ??? ??????
Feb. 19, 2019, 4:44 p.m.

মুক্তিযুদ্ধে বিয়ানীবাজারের স্মৃতি বিজড়িত একটি স্থান সড়ক ও জনপথ ডাকবাংলো। বিয়ানীবাজারের মুক্তিযোদ্ধাদের প্রথম দলটি এই স্থান থেকেই রওয়ানা হয়েছিল। আর ডাকবাংলোর রান্না ঘর ছিল পাক বাহিনীর টর্চার সেল। জানা যায়, এপ্রিলের শুরুতে বিয়ানীবাজার থেকে মুক্তিযুদ্ধে অংশ গ্রহণ প্রত্যশী ৪০জনের প্রথম দলকে প্রশিক্ষন দেয়ার আগে সওজ ডাকবাংলোর টিলার উপরে চল্লিশ জন তরুণ যুবককে শপথ বাক্য পাঠ করান কথাসাহিত্যিক রাজনীতিক আকাদ্দাস সিরাজুল ইসলাম। এসময় উপস্থিত জনগণও মাটিতে হাত রেখে শপথ নেন। পাকবাহিনী বিয়ানীবাজারে অবস্থান কালে এই ডাকবাংলো হয়ে উঠে তাদের অপকর্মের প্রধান আস্তানা। ডাকবাংলো ছিল পাকবাহিনীর ক্যাম্প। ক্যম্প প্রধান ক্যাপ্টেন ইফতেখার হোসেন গন্দল এখানেই অবস্থান নেয়। বিভিন্ন স্থান থেকে মহিলাদের ধরে এখানে আনা হতো গন্দলের লালসা পূরণ করতে। বাংলোর চত্বরে মাদুর বিছিয়ে বসতো শান্তি কমিটির মজলিসে শুরার বৈঠক। চলতো হত্যা, লুন্ঠন, অগ্নি সংযোগ, ধর্ষণের পরিকল্পনা। আর হত্যার পূর্বে ডাকবাংলোর চত্বরের কাঠাল গাছের ডালে ও রান্না ঘরের কড়ি বর্গায় মানুষকে উল্টো করে ঝুলিয়ে চলতো অকথ্য নির্যাতন। ডাকবাংলো, রসুই ঘর আজো টিকে আছে কালের স্বাক্ষী হয়ে। অথচ এই স্থানের ইতিহাস বর্তমান প্রজন্মের অনেকেই জানেনা অথবা আংশিক জানে। ছবি ও তথ্যসূত্র: beanibazarnews24.com